আমিরাতে বায়ান্ন পরিবারের অভিষেক ও সিআইপি সংবর্ধনা

প্রকাশিত: ৮:০৯ অপরাহ্ণ, জুন ৬, ২০২১ 391 views
শেয়ার করুন
  • 157
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    157
    Shares

 

আমিরাতে নিযুুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ আবু জাফর বলেছেন, যারা কাজের আশা দিয়ে দেশ থেকে ভিজিটে লোক এনেছেন আবার এইসব লোক রাস্তার ঘুরছেন। তাদেরকে কাজ অথবা দেশে ফেরত পাঠাতে হবে। তপ্ত রোদের মাঝে এরা রাস্তায় ঘুরবে এটা মেনে নেয়া যাবে না। তিনি শুক্রবার দুবাইয়ের একটি পাঁচ তারকা হোটেলে আমিরাত সরকার অনুমোদিত একমাত্র বাংলাদেশি টিভি বায়ান্ন পরিবারের অভিষেক ও সিআইপি সংবর্ধনায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখতে গিয়ে এ কথা বলেন। তিনি আরো বলেন আমিরাতে বাংলাদেশ সমিতি, বাংলাদেশ বিজনেস কাউন্সিলের পর তৃতীয় বৈধ প্রতিষ্ঠান হিসেবে বায়ান্ন টিভি যাত্রা করেছে।

রাষ্ট্রদূতের সাথে বায়ান্ন পরিবার

বায়ান্ন টিভির চেয়ারম্যান সিআইপি মাহতাবুর রহমান নাসিরের সভাপতিত্বে ও বার্তা সম্পাদক তিশা সেনের পরিচালনায় শুরুতে কোরআন তেলাওয়াত করেন সাইফুর মাহমুদ। অনুষ্ঠানের বিষয় আর বায়ান্ন টিভির আমিরাত ও লন্ডন সরকারের অনুমোদন নিয়ে কথা বলেন বায়ান্ন সম্পাদক ও সিইও লুৎফুর রহমান। এ সময় বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ কনসুলেট জেনারেল দুবাইয়ের ডেপুটি কনসাল জেনারেল শাহেদুল ইসলাম।

 

এ সময় বায়ান্ন টিভির এমডি সালেহ আহমদ বলেন, যে কোন ইভেন্ট আয়োজন বা ম্যাগাজিন প্রকাশনা বের করতে আর দূরে যেতে হবে না সকল বাংলাদেশি বায়ান্ন টিভির লাইসেন্স ব্যবহার করতে পারবেন। বায়ান্ন পরিচালক শাহাদাত হোসেন, হাজী শফিকুল ইসলাম, এম এ কুদ্দুছ খাঁ মজনু, হাবিবুর রহমান, রুজেল তরফদার সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে এবং নিজেদের পথচলায় সাথে থাকার আহবান রেখে বক্তব্য রাখেন। সংবর্ধিত সিআইপিদের পক্ষে বক্তব্য রাখেন সিআইপি মাহাবুব আলম মানিক। অনুষ্ঠানে আমিরাত সরকার নিবন্ধিত বাংলাদেশ বিজনেস কাউন্সিল দুবাইয়ের সিনিয়র সহ সভাপতি আইয়ূব আলী বাবুল, বাংলাদেশ সমিতি দুবাইয়ের আহবায়ক অধ্যাপক আব্দুস সবুর, বাংলাদেশ সমিতি শারজাহের সিনিয়র সহ সভাপতি ইসমাইল গণি ও বাংলাদেশ সমিতি ফুজাইরাহের সভাপতি প্রকৌশলী মাসুদুল হক বায়ান্ন টিভিকে অভিনন্দন জানিয়ে বক্তব্য রাখেন।

জাকজমকপূর্ণ এ অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ কনসুলেটের কমার্শিয়াল কাউন্সিলর কামরুল হাসান, লেবার কাউন্সেলর ফাতেমা জাহানসহ বাংলাদেশ কমিউনিটির নানা স্তর ও পেশার নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে ২০১৮ সালে বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক মনোনীত আমিরাতে বসবাসরত সিআইপি মাহতাবুর রহমান, মাহাবুব আলম মানিক, জেসমিন আক্তার, আবুল কালাম, জাহাঙ্গীর আলম ও শিমুল মোস্তাফাকে সম্মাননা স্মারক তুলে দেন রাষ্ট্রদূত। এ সময় বায়ান্ন টিভির পরিচালকদের হাতেও অভিনন্দন স্মারক তুলে দেন রাষ্ট্রদূত। এ সময় বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তি উপলক্ষে ‘৫০ বছরে সোনার বাংলা’ নামক বিশেষ প্রকাশনার মোড়ক উন্মোচন করা হয়।

অনুষ্ঠানে ধনধান্যে পুষ্পে ভরা গানের সাথে নেচে সকলের মন জয় করেন ছোট্ট বন্ধু পুষ্পিতা ও মৌমিতা। পরে ‘৫২ থেকে ৭১: বাংলাদেশ মাথা নোয়াবার নয়’ শিরোনামের গীতিআলেখ্য পরিবেশন করে ইয়ুথ বাংলা কালচারাল ফোরাম আমিরাত শাখা।