ফেরদৌসের ভিসা বাতিল হলে মোদির কেনো নয়, প্রশ্ন মমতার

নিউজ ডেস্ক নিউজ ডেস্ক

বায়ান্ন টিভি

প্রকাশিত: ৫:২৮ পূর্বাহ্ণ, মার্চ ২৮, ২০২১ 315 views
শেয়ার করুন
  • 122
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    122
    Shares

পশ্চিমবঙ্গে প্রথম দফায় ভোটের দিন শনিবার বাংলাদেশে মতুয়া সম্প্রদায়ের মন্দিরে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির পূজা দেয়া নিয়ে কটাক্ষ করেছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি।

 

 এর আগে বাংলাদেশের জনপ্রিয় অভিনেতা ফেরদৌসের ভিসা বাতিলের প্রসঙ্গ টেনে মমতা বলেন, ‘আপনার (মোদি) ভিসা কেন বাতিল হবে না?’

শনিবার পশ্চিমবঙ্গের ৩০টি আসনে প্রথম দফার ভোট গ্রহণের দিন এমন প্রশ্ন ছোড়েন মমতা।

স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে অংশ নিতে দুই দিনের সফরে বাংলাদেশে রয়েছেন মোদি।

তিনি শনিবার দেবীর উদ্দেশে পূজা দিয়েছেন সাতক্ষীরার প্রাচীন যশোরেশ্বরী কালীমন্দিরে। পরে মতুয়া সম্প্রদায়ের মানুষের তীর্থস্থান গোপালগঞ্জের ওড়াকান্দিতেও যান তিনি।

অভিযোগ উঠেছে, ভোটের সমীকরণ মাথায় রেখেই মোদির এই বাংলাদেশ সফর। বিশেষ করে পশ্চিমবঙ্গে হিন্দু মতুয়া সম্প্রদায়ের বিপুলসংখ্যক মানুষের বাস বলে ‘রাজনৈতিক কূটকৌশলের’ অংশ হিসেবে ওড়াকান্দি গেছেন মোদি।

রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের মতে, ভোটের সমীকরণ মাথায় রেখেই মতুয়া সম্প্রদায়ের মন্দিরে পা রেখেছেন তিনি।

মোদিকে ইঙ্গিত করে মমতা ব্যানার্জি বলেন, ‘দেশে নির্বাচন চলছে, আর তিনি গেছেন বাংলাদেশে। সেখানে গিয়ে আবার পশ্চিমবঙ্গের ব্যাপারে জ্ঞান দিচ্ছেন। এটা নির্বাচনি বিধিমালার স্পষ্ট লঙ্ঘন।’

ভারতের রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা এএনআই জানিয়েছে, এ সময় বাংলাদেশের চলচ্চিত্র অভিনেতা ফেরদৌসের প্রসঙ্গ টানেন মমতা। বলেন, ‘২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনে যখন এক বাংলাদেশি অভিনেতা আমাদের হয়ে প্রচারে অংশ নিলেন, তখন কী হয়েছিল? সে সময় সরকারের সঙ্গে কথা বলে সেই অভিনেতার ভিসা বাতিল করেছিল।’

শনিবার খড়গপুরে নির্বাচনি সমাবেশে মমতা আরও বলেন, ‘আর এখন যখন এখানে নির্বাচন চলছে, তখন ভোটারদের এক অংশের ভোট পেতে আপনি বাংলাদেশে গিয়ে বসে আছেন। তাহলে আপনার ভিসা কেন বাতিল হবে না? নির্বাচন কমিশনে নালিশ জানাব আমি।’

মতুয়াদের আধ্যাত্মিক ধর্মগুরু হরিচাঁদ ঠাকুরের জন্মস্থান গোপালগঞ্জের ওড়াকান্দি। সেখানে মন্দিরে শনিবার পূজা দেন মোদি। ওড়াকান্দিতে কয়েক হাজার মতুয়ার বাস, পশ্চিমবঙ্গে এ সংখ্যা আরও বেশি। রাজ্যটির বিধানসভা নির্বাচনের ফল পাল্টে দিতে পারেন তারা, রয়েছে এমন সমীকরণও।

ওড়াকান্দি সফরে মতুয়াদের উদ্দেশে মোদি বলেন, ‘আজ যখন আমি এখানকার মানুষের সঙ্গে কথা বলছিলাম, তারা জানিয়েছেন যে ভারতের কোনো প্রধানমন্ত্রী এখানে আসতে পারেন- এমনটা কোনো দিন কল্পনাও করতে পারেননি তারা।’

এনডিটিভি বলছে, মোদির এ কথা আদতে পশ্চিমবঙ্গের মতুয়া ভোটারদের উদ্দেশে একটি রাজনৈতিক বার্তা।

ওড়াকান্দিতে একটি বালিকা বিদ্যালয়ের উন্নয়ন, একটি প্রাথমিক বিদ্যালয় নির্মাণ এবং সেখানে ভারত থেকে সহজ যাতায়াতেরও আশ্বাস দিয়েছেন মোদি।

শনিবার স্বাধীনতা দিবসের আয়োজনে দেয়া ভাষণে মোদি দাবি করেন, একাত্তরে বাংলাদেশের স্বাধীনতার জন্য আন্দোলন করতে গিয়ে কারাবরণ করেছিলেন তিনি।

প্রতিবেশী দেশে মোদির এই বক্তব্যের সমালোচনা করে মমতা বলেছেন, ‘বিজেপিই দাবি করে যে বাংলাদেশ থেকে মমতা ভারতে লোক ঢোকাচ্ছে। আর এখন প্রধানমন্ত্রী নিজেই ভোট পাওয়ার লোভে সে দেশে গেছেন।’

রেকর্ড আট দফায় বিধানসভা নির্বাচন হচ্ছে পশ্চিমবঙ্গে। ২৭ মার্চ থেকে শুরু হয়ে আগামী ২৯ এপ্রিল পর্যন্ত রাজ্যের ২৯৪ আসনে হবে ভোট। ফল প্রকাশ হবে ২ মে।

টানা দুইবারের মুখ্যমন্ত্রী মমতাকে গদি থেকে সরাতে এবং এ রাজ্যে ঘাঁটি গাড়তে তৃণমূল কংগ্রেসের শীর্ষ রাজনীতিকদের নানা প্রলোভনে দলে নিয়েছে মোদির বিজেপি।