শিল্পী সমিতির বনভোজনে হাতাহাতি

লুৎফুর রহমান লুৎফুর রহমান

সম্পাদক ও সিইও, বায়ান্ন টিভি

প্রকাশিত: ৭:০৬ অপরাহ্ণ, মার্চ ৪, ২০২৪ 125 views
শেয়ার করুন

 

সম্প্রতি অনুষ্ঠিত হয়েছে শিল্পী সমিতির বার্ষিক বনভোজন। এবারের বনভোজনে খাবারে অব্যবস্থাপনা, তারকা শিল্পীদের অনুপস্থিতি, জায়েদ খানের সদস্যপদ বাতিলসহ নানা বিতর্কের জন্ম দিয়েছে। এমনকি হাতাহাতি-মারামারির মতো ঘটনাও ঘটেছে; যা গড়িয়েছে মামলায়।

সমিতির সদস্য নিশু তার মেয়েকে নির্যাতনের অভিযোগ এনে মামলা করেছেন কয়েকজনের বিরুদ্ধে। সমিতি বরাবর অভিযোগ জানানোর একদিন পার হয়ে গেলেও সমাধান না পেয়ে মামলা করেছেন বলে জানিয়েছেন ভুক্তভোগী এই শিল্পী।

৩ মিনিট ৩ সেকেন্ডের ভাইরাল ওই ভিডিওতে দেখা যায়, এক কিশোরীর সঙ্গে অকথ্য ভাষায় কথা বলছেন একজন। এরপরই পরিস্থিতি মোড় নেয় ঝগড়ায়। দুইজনের বাগবিতণ্ডায় শেষ পর্যন্ত ঝগড়া পৌঁছায় হাতাহাতিতে। এতে এফডিসিতে থাকা শিল্পী সমিতির পিকনিকে উপস্থিতরা ঝগড়া ও হাতাহাতি ঠেকাতে এগিয়ে আসেন।

পিকনিকের আনন্দঘন মুহূর্তে হঠাৎ কী কারণে এ পরিস্থিতি তৈরি হয়েছিল সে বিষয়ে অবশ্য কিছুই জানা যায়নি।

রোববার রাতে এমন ভিডিও নেটদুনিয়ায় প্রকাশ পেতেই মুহূর্তে তা ছড়িয়ে পড়তে শুরু করে নেটিজেনদের মধ্যে- জন্ম নেয় আলোচনা-সমালোচনা।

এদিকে হাতাহাতির সেই ঘটনা এবার মোড় নিয়েছে মামলায়। সংগঠনের সদস্য নিশু তার মেয়েকে নির্যাতনের অভিযোগ করে মামলা করেছেন কয়েকজনের বিরুদ্ধে। শুরুতে সমিতি বরাবর অভিযোগ জানিয়ে কার্যকর কোনো সমাধান না পেয়ে মামলা করেছেন বলে জানিয়েছেন নিশু।

তিনি বলেন, বনভোজনে হাতাহাতির ঘটনাটি শিল্পী সমিতিকে অবহিত করেছি আমি। এ ব্যাপারে নিপুণকে ফোন করলে কোনো সাড়া পাইনি। তবে শাহনূর ও জেসমিন ফোন করেছিল আমাকে। বিষয়টি তারা দেখতেছে বলেছিলেন। তবে তারপর আর খবর নেই। ঘটনার একদিন পার হয়েছে; কিন্তু নিপুণ আমাকে ফোন করতে পারত, কিন্তু একবারও ফোন করেনি; যা আমাকে খুব কষ্ট দিয়েছে।

নিশু আরও বলেন, এ ঘটনার বিচার চেয়ে মামলা করেছি আমি। আগামীকাল এ ব্যাপারে সংবাদ সম্মেলন করব। সেখানে এ নিয়ে বিস্তারিত বলব। এখন ঈদের একটি নাটকের শুটিংয়ে ব্যস্ত আছি। পরে এ ব্যাপারে কথা বলব।