বিয়ানীবাজারে পৌর আওয়ামী লীগ নেতার উপর হামলার ঘটনায় কাউন্সিলরসহ ১০ জনকে আসামি করে মামলা

প্রকাশিত: ৩:৩৩ অপরাহ্ণ, জুন ২৫, ২০২৪ 355 views
শেয়ার করুন

বিয়ানীবাজার উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের পরদিন পৌর আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক আব্দুল হান্নানের উপর হামলার ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলায় বিয়ানীবাজার পৌরসভার ৮নং ওয়াডের কাউন্সিলর সহ ছাত্রলীগের ১০ জনকে আসামি করা হয়েছে। সন্ত্রাসী হামলায় গুরুতর আহত আওয়ামীলীগ নেতা আব্দুল হান্নানের দু’পা এবং হাত ও শরীরের একাধিক স্থানে হাড়ভাঙ্গা জখম হয়। তিনি গত ২৫ দিন থেকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

 

হামলার ঘটনায় তার স্ত্রী শারমিন আক্তার রিমা বাদী হয়ে বিয়ানীবাজার থানায় হত্যা প্রচেষ্টার অভিযোগে একটি মামলা দায়ের করেছেন। তবে পুলিশ ঘটনায় জড়িত কাউকে এখনো পর্যন্ত গ্রেফতার করতে পারেনি।

 

জানা যায়, গত ৩০ মে রাত ৮ টার দিকে দক্ষিণ বিয়ানীবাজারস্থ (সিটি সেন্টারের দক্ষিণ পাশে) আব্দুল হান্নানের মালিকানাধীন জান্নাত টেলিকমের পূর্ব পাশের জনশূন্যএলাকায় পূর্ব থেকে উৎপেতে থাকা সংঘবদ্ধ একদল লোক তাকে একা পেয়ে জিম্মি করে ফেলে। পরে তারা দেশীয় অস্ত্র দিয়ে হামলা চালিয়ে দুই পা ও শরীরের বিভিন্ন অংশে জখম করে। এসময় চিৎকার শুনে লোকজন এগিয়ে আসলে হামলাকারীরা চলে যায়। পরে স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার শারিরীক অবস্থার অবনতি ঘটলে উন্নত চিকিৎসার জন্য ৩১ মে রাতে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। সেই থেকে তিনি এখনো সেখানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। ইতিমধ্যে স্থানীয় এমপি সাবেক শিক্ষা মন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ হাসপাতালে গিয়ে আওয়ামী লীগ নেতার সাথে দেখা করে তার চিকিৎসার খোঁজ নিয়েছেন।

 

দায়েরকৃত মামলার আসামীরা হলেন, ছাত্রলীগ নেতা নিদনপুর কাজিবাড়ির রায়হানুল হক (২৭), একই গ্রামের জাকারিয়া মাহমুদ (৩০), ছাত্রলীগের সদ্য সাবেক সাধারণ সম্পাদক জাহিদুল হক তাহমিদ (৩৩), পৌর ছাত্রলীগের সদ্য সাবেক সাধারণ সম্পাদক রেদওয়ান আহমদ (২৭), ছাত্রলীগ কর্মী রুমেল আহমদ মুন্না (২৬), শাহনুর সিদ্দিক (২৮), কাকরদিয়া তেরাদলের আলী আহমদ (৩৫), পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলার এনাম হোসেন (৩২), ইমন আহমদ (৩২) ও চারখাইয়ের শিপন চন্দ্র শিবা (২৮)।

 

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই পরিতোষ পাল জানান, চিনি ছিনতাই মামলায় জেলহাজতে থাকা আসামী জাহিদুল হক তাহমিদকে এই মামলায় শ্যোন এরেস্ট দেখাতে আদালতে আবেদন করা হয়েছে। অন্য আসামীদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে।