সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভুয়া আইডি খুলে ভাইস চেয়ারম্যানের নামে অপপ্রচার, থানায় জিডি

প্রকাশিত: ২:৪২ পূর্বাহ্ণ, এপ্রিল ২৫, ২০২১ 95 views
শেয়ার করুন
  • 9
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    9
    Shares

 

মৌলভীবাজার জেলার- বড়লেখায় উপজেলা যুবলীগের সভাপতি ও উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান, মোহাম্মদ তাজ উদ্দিনের বিরুদ্ধে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অপপ্রচার চালানো হচ্ছে।

 

উল্লেখ্য – ‘‘বড়লেখার খবর’’ ও ‘‘বিয়ানীবাজার বড়লেখা বার্তা’’ নাম দিয়ে ভুয়া আইডি তৈরি করে অপপ্রচার করায় শনিবার দুপুরে তিনি থানায় জিডি করেছেন।

 

জিডিতে উল্লেখ করা হয়, শনিবার ভোররাতে সেহরী খেতে উঠে নিজের ফেসবুক খুলে দেখেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে – পরিবেশ, বন ও জলবায়ু মন্ত্রী ও একজন সাংবাদিকের ছবি ব্যবহার করে ‘‘বড়লেখার খবর’’ ও ‘‘বিয়ানীবাজার বড়লেখা বার্তা’’ নামের ভুয়া আইডিতে সুনাম ক্ষুণ্ন করার অপচেষ্টায় ছবি সংযুক্ত করে তার নামে বিভিন্ন প্রকার কুরুচিপূর্ণ মিথ্যা অপবাদ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফেসবুকে প্রচার করা হয়েছে।

 

যা বড়লেখা উপজেলা সহ বিভিন্ন এলাকায় ছড়িয়ে দিয়েছে মূহুর্তেই রাজনৈতিক প্রতিহিংসা ও হেয় প্রতিপন্ন করার কৌশল অবলম্বন করে লাইক ও শেয়ার করতেছে। কিছু স্বার্থনেষী মহল এবং নানা রকম কটুক্তি মূলক মন্তব্য করতেছে। এতে তার সম্মানহানি হয়েছে। এ ঘটনায় তিনি গুজব তথ্য ও অপ্রচারকারিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য তিনি এই জিডি করেন।

মৌলভীবাজার জেলার বড়লেখা উপজেলার পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান -মোহাম্মদ তাজ উদ্দিন বলেন, ‘ভুয়া এই আইডিগুলো থেকে সম্মানিত অনেকের নামে প্রতিনিয়িত অপপ্রচার করা হয়। আমার সুনাম ক্ষুণ্ন করার অপচেষ্টায় কেউ মিথ্যা তথ্য দিয়ে এগুলো করেছে। আমি জিডি করেছি। সন্দেহভাজনের তথ্যও পুলিশকে দিয়েছি। পুলিশ বিষয়টি তদন্ত করছেন।

 

তিনি জানান, যারা এই মিথ্যা পোস্ট শেয়ার ও কমেন্ট করেছেন তাদের বিরুদ্ধেও আইনি পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে । এবং সবাইকে অনুরোধ করেছেন, গুজবে কান দিয়ে, আগে সত্যতা – মিথ্যা যাচাই-বাছাই করে আপনাদের মন্তব্য করবেন।

 

এ বিষয় বড়লেখা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) জাহাঙ্গীর হোসেন সরদার বলেন- এ ঘটনায়, থানায় ভাইস চেয়ারম্যান জিডি করেছেন। পুলিশ বিষয়টি তদন্ত করে দেখছে।