বিমানবন্দরে প্রবাসীর স্বজনদের বসে অপেক্ষা করার মতো নেই কোনো ব্যবস্থা

প্রকাশিত: ৪:০১ অপরাহ্ণ, জুন ১৫, ২০২১ 141 views
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

দেশের অর্থনীতিতে এখন সবচেয়ে বড় বিস্ময়ের নাম প্রবাসি। প্রতিনিয়ত রেমিট্যান্সের মাধ্যমে অর্থনীতির চাকা সচল রাখতে তাদের ভূমিকা নেই। কিন্তু স্মমানিত প্রবাসীদের স্বজনরা বিমানবন্দরে তাদের জন্য অপেক্ষা করতে এসে পোহায় নানা বি’ড়ম্ব’না। রাজধানীর হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে প্রবাসী যাত্রির স্বজনদের বাসার মত কোনো জায়গা রাখা হয়নি। রেলিং ধরে কিংবা লোহার বেস্টনীতে হাত রেখে দাঁড়িতে থাকে দীর্ঘক্ষণ। আবার কাউকে দেখা যায় দেয়ালের উপর শুয়েই ঘুমাচ্ছে।

এমনকি খোলা আকাশের নীচে পরিত্য’ক্ত কাগজ কুড়িয়ে বসে থাকা লোকেরও অভাব নেই। এদের মাঝে অনেকেই তীব্র দা’বদাহে অ’সুস্থও হয়ে পড়ছেন প্রতিনিয়ত। যেন তাদের কেউ নেই, নেই কোনো সহায় সম্বল। প্রবাসী যাত্রীর জন্য অপেক্ষায় থাকা বজলুর রহমান বলেন, আমার ভাই সৌদি থেকে আজ ভোর ৬টায় বাংলাদেশে এসে নেমেছে।

আমরা তাকে বাড়িতে নিয়ে যেতে বাড়ি থেকে ভোর ৩টায় রওয়ানা দিয়ে এসেছি। এখানে আসার পর কোথায়ও বসার জায়গা নেই। খোলা আকাশের নিচে বৃষ্টির মাঝে বসে আছি।

আরেক প্রবাসীর বাবা কুমিল্লার কুদ্দুস মিয়া বলেন, বহু কষ্টে ছেলেকে বিদেশ পাঠিয়েছি। তাকে বিদায় দিতে এয়ারপোর্টে এসে দাঁড়িয়ে আছি। অনেক্ষণ ধরে বাইরে দাঁড়িয়ে আছি। কোথাও যে বসবো সেই সুযোগ নেই। বারবার বৃষ্টি আসছে, কোনো উপায় না থাকায় আমরাও ভিজছি বৃষ্টিতে।

এ বিষয়ে বিমানবন্দর আর্মড পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ জিয়াউল হক জানান, বিমানবন্দরে স্থায়ীভাবে কোন স্থাপনা করার এখতিয়ার শুধুমাত্র সিভিল এভিয়েশনের। এরপরও এ বিষয়ে আমরা যাত্রীর স্বজনদের বসার জায়গা সমস্যার সমাধানে কর্তৃপক্ষের সাথে কথা বলে দ্রুত সমাধান করার জন্য চেষ্টা করবো।