হারিয়ে গেছে নরসিংদির সুস্বাদু মিঠাপানির মাছ

প্রকাশিত: ৬:১১ অপরাহ্ণ, মে ৮, ২০২০ 293 views
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

মেঘনা, শীতলক্ষ্যা, আরিয়াল খা ও ব্রম্মপুত্র এই চার নদী বিধৌত নরসিংদী জেলা। আরও রয়েছে ৯৪ টি বিল ও অসংখ্য খাল দিয়ে পরিবেষ্টিত এই প্রানের জেলাটি। পাহাড়িয়া, কলাগাছিয়া, হাড়িধোয়া, চিনাদী বিলসহ প্রায় সব নদী ও খাল – বিলে একসময় প্রচুর পরিমাণেে দেশিয় প্রজাতির মাছ পাওয়া যেত। নরসিংদীর বড় বাজার সহ বিভিন্ন বাজারে বিক্রির পাশাপাশি ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানেও সরবরাহ হতো এই মাছ। নদী খাল- বিল দখল করে মাটি ভরাট, শিল্প কারখানার বিষাক্ত বজ্য ফেলা, ফসলে কীটনাশকের অতিরিক্ত ব্যবহার, নাব্যতা নষ্ট হয়ে পানির প্রবাহ কমে যাওয়া ইত্যাদি কারনে এ জেলার সবত্র ধীরে ধীরে বিলুপ্ত প্রায় দেশি প্রজাতির সুস্বাদু মিঠাপানির মাছ। মেঘনায় একসময় জেলেদের জালে পাংগাস, গুছি, চিতল, বাঘা আইর, বাছা, বাতাসি, ফলি, পিয়ালী ইত্যাদি প্রজাতির মাছ ধরা পড়তো। নরসিংদির খালে – বিলে পাওয়া যেত শিং, কৈ, পাবদা, মলা, ঢেলা, মেনি, শোল, টাকি ইত্যাদি মজাদার লোভনীয় মাছ। শিবপুরের চিনাদী বিলে ছিলো দেশি মাছের আধার ।

তবে আশার কথা হলো নরসিংদির নদীগুলোতে ভাসমান খাঁচায় দেশিয় রুই, কাতলা, পাংগাস, কৈ, পাবদা ও সরপুঁটি সহ বিভিন্ন প্রজাতির মাছ প্রাকৃতিক পরিবেশেে চাষ করা লাভজনক হওয়ায় এবং মাছের স্বাদ ও অন্যান্য গুনাগুন বজায় থাকায় আবার ধীরে ধীরে ফিরে আসতে শুরু করেছে নরসিংদির মজাদার মিঠাপানির মাছ। মৎস ও পানিসম্পদ অধিদপ্তরের প্রচেষ্টায় বর্তমানে দেশিয় মাছের বংশবিস্তার ও রক্ষার জন্য নরসিংদীর বিভিন্ন নদী ও বিলে মৎস অভয়াশ্রম তৈরির চেষ্টা চলছে। এতে সফল হলে আবার ফিরে আসবে সুস্বাদু সকল মিঠাপানির দেশিয় মাছ।