সিলেটে মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিচিহ্ন’র গ্রন্থালোচনা ও ভার্চুয়াল আলোচনা সভা সম্পন্ন

নিউজ ডেস্ক নিউজ ডেস্ক

বায়ান্ন টিভি

প্রকাশিত: 2:07 PM, January 17, 2022 207 views
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

 হিন্দু যুব প্রবাসী পরিষদের উদ্যোগে ‘সিলেটে মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিচিহ্ন’ বইয়ের গ্রন্থালোচনা ও ভার্চুয়াল আলোচনা সভা সম্পন্ন হয়েছে। গতকাল রবিবার বাংলাদেশ সময় রাত ৯:৩০ টায় শুরু হয়ে রাত ১১:৩০ টায় অনুস্টানটি সমাপ্ত হয়।

 

বাংলাদেশ হিন্দু প্রবাসী পরিষদ ও হিন্দু এসোসিয়েশন অব জর্জিয়ার সভাপতি সত্যব্রত কর এর সভাপতিত্বে ও বাংলাদেশ হিন্দু যুব প্রবাসী পরিষদের সভাপতি সঞ্জয় দেব এর পরিচালনায় ভার্চুয়াল সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন হবিগঞ্জ ১ আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য গাজী মো: শাহনেওয়াজ মিলাদ এমপি, প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন বীর মুক্তিযোদ্ধা লে: কর্নেল অব: নিরঞ্জন ভট্টাচার্য, বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সম্প্রীতি বাংলাদেশের সদস্য সচিব ও বঙ্গবন্ধু মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের লিভার বিভাগের প্রধান ডা: মামুন আল মাহতাব স্বপ্নীল, সিলেট মহানগর মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা ভবতোষ রায় বর্মন, সিলেট জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর্জা জামাল পাশা, বাংলাদেশ হিন্দু পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক দেবাশীষ সাহা,সুনামগঞ্জ জেলা মহিলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি, এপিপি সবিতা চক্রবর্তী, সোনালী ব্যাংক বিয়ানীবাজার শাখার ব্যাবস্থাপক বিধু ভুষন দাস, কবি ও ছড়াকার এড. হারান কান্তি সেন, হিন্দু পরিষদ সিলেট জেলা শাখার সভাপতি দিপক রায়।

 

শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ হিন্দু যুব প্রবাসী পরিষদের সাধারণ সম্পাদক দীপক মল্লিক, বাংলাদেশ হিন্দু যুব প্রবাসী পরিষদের নির্বাহী সভাপতি সৌমিত্র ভট্টাচার্য। বিশেষ অতিথি হিসেবে আরো বক্তব্য রাখেন মির্জাজাঙ্গাল শহীদ এন্দ পরিবারের সন্তান বাপ্পু এন্দ, কলকাতায় সিলেটি কমিউনিটি নেতা প্রদুষ রঞ্জন দে, বিয়ানীবাজার সুপাতলা শহীদ ঘোষ পরিবারের সন্তান মহেশ রঞ্জন ঘোষ, সাংবাদিক যীশু আচার্য, শ্রীবাস মল্লিক,হিল্লোল পাল, লেখক আশীষ দে এর সহধর্মিণী মিত্রা দে,সিলেট জেলা মহিলা হিন্দু পরিষদ এর আহবায়ক মনি দে, সদস্য সচিব তৃষ্ণা চক্রবর্তী, প্রমুখ। সভায় বক্তারা বলেন সিলেট অঞ্চলের মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ে সাহিত্য গবেষণা কাজ খুব কম হয়েছে।

 

আশীষ দে ব্যাক্তি উদ্যোগে বিভিন্ন প্রত্যন্ত অঞ্চলে ঘুরে বেড়িয়ে একাত্তরের ভুক্তভোগী ও প্রত্যক্ষদর্শীদের সাথে কথা বলে রচনা করেছেন মহান মুক্তিযুদ্ধের অনন্য দলিল ‘সিলেটে মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিচিহ্ন’। আশীষ দে এর কাজ দেখে অন্যরাও মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক গবেষণায় অনুপ্রাণিত হবেন বলেন মতামত ব্যক্ত করেন বক্তারা। এসময় বক্তারা মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় অসাম্প্রদায়িক, সমৃদ্ধ, বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ গড়ে তুলতে সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার আহবান জানান।