মালয়েশিয়ায় কর্মী চাহিদা বৃদ্ধি পাচ্ছে

প্রকাশিত: 6:46 PM, November 5, 2021 307 views
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

 

করোনার কারণে কেবল এসেনশিয়াল পণ্য উৎপাদন ও পরিবহন ছাড়া একেবারে সব সেক্টর বন্ধ ছিল। ফলে অর্থনৈতিক গতি মারাত্মকভাবে স্লথ হয়ে যায়। সেই সময় বিশ্বব্যাংক এবং অন্যান্য আন্তর্জাতিক সংস্থা অপূর্বাভাস দিয়েছিল যে, মালয়েশিয়ার শক্ত ভিত্তি থাকায় অর্থনীতি দ্রুত গতি পাবে। সেটাই এখন লক্ষ্য করা যাচ্ছে।

সম্প্রতি মালয়েশিয়ান এএমব্যংক ওয়েবসাইটে উল্লেখ করেছে যে, কোভিড ১৯ থেকে মালয়েশিয়া অর্থনীতির দ্রুত উদ্বোধনের কারণ হলো সম্প্রতি অভ্যন্তরীণ পণ্যের চাহিদার রিকভারি এবং আন্তর্জাতিক বাণিজ্যের উন্নতি। গেল অক্টোবর মাসে মালয়েশিয়ান পারচেজিং ইনডেক্স চার মাস পরে ৪৮.১ পয়েন্ট থেকে ৫২.২ পয়েন্টে উন্নীত হয়েছে। বলা হয়েছে উৎপাদনের এ পজিটিভ উদ্বোধনের পেছনে অন্যতম কারণ হলো কোভিড-১৯ এর কঠিন ও কঠোর শর্তগুলো ক্রমশ শিথিল করার ফলে। বিশেষ করে করোনা ভাইরাসের টিকা দেওয়ার ফলে কোভিড নিয়ন্ত্রণে এসেছে ফলে দেশটি ন্যাশনাল রিকভারি প্ল্যান এর চতুর্থ স্টেজে আসতে পেরেছে এবং উৎপাদনে গতি ফিরেছে। এ পর্যন্ত ৯৫% টিকা দেওয়া সম্পন্ন করেছে মালয়েশিয়া; যা স্বাভাবিক জীবনযাত্রায় ফিরে যাবার ইঙ্গিত করছে।

মালয়েশিয়ার বৃহত্তম উৎপাদন খাতে (ম্যানুফ্যাকচারিং সেক্টর) উপযুক্ত কর্মীর প্রয়োজন রয়েছে। অনেক আগে থেকেই প্ল্যান্টেশন সেক্টর কর্মী সংকটে উৎপাদন ব্যাহত হওয়ার তথ্য তুলে ধরায় মালয়েশিয়া সরকার প্ল্যান্টেশন সেক্টরে বিশেষ প্রক্রিয়ায় ৩২ হাজার বিদেশি কর্মী নিয়োগের প্রস্তুতি গ্রহণ করেছে। ইন্দোনেশিয়া থেকে কর্মী নিয়োগ শুরু করে অন্যান্য লেবার সোর্স দেশ থেকেও কর্মী নিয়োগ করবে বলে জানা গেছে। একইভাবে কনস্ট্রাকশন, সার্ভিস, এগ্রিকালচার অন্যান্য সেক্টরে বিদেশি কর্মী নিয়োগের সুযোগ প্রসারিত হতে থাকবে বলে সংশ্লিষ্টরা মনে করেন।